bdstall.com

ড্রোন ব্যবহারের নিয়ম ও শর্তাবলী

June 24, 2021

কিছুদিন আগেও বাংলাদেশে ড্রোন ব্যবহারে ছিলো অনেক ধরনের বিধীনিষেধ। শুধুমাত্র আইন শৃঙ্গখলা বাহিনী ও জরুরী ব্যবহারের জন্য কিছু সাধারণ মানুষ তা ব্যবহার করত। পর্যায়ক্রমে তা কিছুটা শিথিল করা হলেও ড্রোন ক্যামেরা ব্যবহার করাতে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের নিয়ম কানুন। ড্রোন উড়ানোর আগে কিছু কিছু এলাকা যেমনঃ কেপিআই ভুক্ত এলাকা, এয়ারপোর্ট, নিষিদ্ধ এলাকা ও বিপদজ্জনক এলাকা চিহ্নিত করতে হবে। এই সকল এলাকাকে ড্রোনের জন্য বলা রেড জোন। এই রেড জোনে ড্রোন উড়ানো সম্পূর্ণ নিষেধ। এছাড়াও যে সকল নিয়ম কানুন মানলে খোলা আকাশের নিচে ড্রোন উড্ডয়ন করা যাবে তা হলঃ   

 

 

১। ড্রোন কেনার সময় ড্রোন নিবন্ধন করে নিতে হবে যার নিবন্ধিত নম্বর ড্রোনের গায়ে লিপিবদ্ধ করা থাকতে হবে।

 

২। নির্দিষ্ট কোন সভা বা সমাবেশের ২ কি.মি এর ভিতরে ৩ দিন আগ থেকে ড্রোন উড়ানো নিষেধ। যদি ড্রোন উড়ানোর প্রয়োজন পরে তাহলে পূর্বে থেকেই বিশেষ অনুমতি নিতে হবে।

 

৩। ড্রোন চালক অবশ্যই বেবিচক নির্ধারিত পদ্ধতিতে ড্রোন উড্ডয়নের সার্টিফিকেট  গ্রহণ করতে হবে।

 

৪। সাধারণ মানুষ সর্বোচ্চ ১০০ মিটার পর্যন্ত ড্রোন উড্ডয়ন করতে পারবে।

 

৫। ড্রোন উড্ড্যনের জন্য ড্রোন চালকের বয়স নুন্যতম ১৮ বছর ও এসএসসি পাশ হতে হবে।

 

৬। গ্রীন জোনে ড্রোন উড়ানোর আগে নিকটস্থ থানাকে অবগত করার জন্য একটি লিখিত দেওয়া। যাতে করে পরবর্তিতে কোন জটিলতায় বা সমস্যায় না পরতে হয়।

 

৭। জাতীয় বা আন্তর্জাতিক কোন ইভেন্ট বা সমাবেশ চলাকালীন সময়ে এর আশে পাশে প্রায় ৫ কি.মি এর ভিতরে ড্রোন উড্ডয়নের ক্ষেত্রে বেবিচক কর্তৃক প্রণীত নিয়মকানুন অনুসরণ করতে হবে।

 

৮। ড্রোন কেনার সময় যে সকল সার্টিফিকেট ও বেবিচক কর্তৃক প্রদত্ত অনুমোদনের কপি ড্রোন চালককে সবসময়ের জন্য নিজের সাথে রাখতে হবে।     

 

ড্রোনের বর্তমান বাজার দাম জেনে নিতে পারবেন বিডিস্টল.কম এর ওয়েবসাইট থেকে।

Reviews (0) Write a Review