bdstall.com

ল্যাপটপ এর দাম ২০২২

বাংলাদেশের সেরা ল্যাপটপ এর মূল্য তালিকা 2021 এবং July, 2022

ল্যাপটপ মডেল বাংলাদেশে দাম
Asus VivoBook U38DT-R3001H Gaming Laptop ৳ ১৯,০০০
HP Pavilion 14-ce3043TX Core i5 10th Gen Laptop ৳ ৫২,৫০০
HP EliteBook 8470p Core i5 3rd Gen 4GB RAM 320GB HDD ৳ ১১,৯৯৯
Lenovo IdeaPad G5080 Core i3 4th Gen Laptop ৳ ১৪,০০০
Lenovo ThinkPad X260 Core i5 8GB RAM 12.5" Laptop ৳ ২৪,০০০
HP 15s-du3786TU Core i3 11th Gen Laptop ৳ ৫৫,০০০
HP Probook 450 G8 Core i5 11th Gen Gaming Laptop ৳ ৯১,০০০
Acer TravelMate TMP 214-53G Core-i7 11th Gen Laptop ৳ ৯৫,০০০
HP ProBook 440 GO Core i5 4GB RAM 500GB 14" Laptop ৳ ১৪,০০০
Dell Inspiron 15-3521 Core i3 3rd Gen Laptop ৳ ১২,৯৯৯

ল্যাপটপ কম্পিউটার এখন নিত্য দিনের সঙ্গী। ল্যাপটপ  এর দাম এখন আগের তুলনায় অনেক কম। কম্পিউটার এর দাম নির্ভর করে প্রসেসর, র‌্যাম, গ্রাফিক্স, ওয়েট এর উপর। কম্পিউটার এর ব্যবহার এর উপর ভিত্তি করে ২০২১ ও ২০২২ সালের কিছু ল্যাপটপ এর দাম এবং পরামর্শ দেওয়া হল।

বাংলাদেশে কোন ধরণের ল্যাপটপ সবচেয়ে ভাল ?

আপনার প্রয়োজনীয়তা এবং বাজেটের উপর ভিত্তি করে ল্যাপটপ কিনুন। বর্তমানে বিডিতে ল্যাপটপের দাম আগের তুলনায় তুলনামূলক কম। নীচে কিছু ল্যাপটপ টাইপ দেওয়া হল-

স্টুডেন্ট ল্যাপটপে কম শক্তিশালী হার্ডওয়্যার থাকে তবে অনলাইন ক্লাস, ইন্টারনেট ব্রাউজিং, ভিডিও চ্যাট এবং কনফারেন্স, ই-বই পড়া এবং অফিস সফটওয়্যারের মাধ্যমে ক্লাস অ্যাসাইনমেন্টের জন্য ভাল কাজ করে।

বেশিরভাগ অ্যাপ্লিকেশন দ্রুত চালানোর জন্য পেশাদার বা প্রোফেশনাল ল্যাপটপ সাধারণত উচ্চ কনফিগারেশনের হয়। কোর আই ৯ এবং এসএসডি অন্যতম প্রধান বৈশিষ্ট্য।

বিজনেস সিরিজ ল্যাপটপ অথবা আলট্রাবুক হালকা ও পাতলা এবং কোর আই ৭ প্রসেসর, এবং দীর্ঘ ব্যাটারি লাইফ সহ আসে। আলট্রাবুক ব্যবসায়িক সিরিজ ল্যাপটপের একটি উদাহরণ।

ফ্রিল্যান্সার ল্যাপটপ ফ্রিল্যান্সিং কাজের ধরণের উপর নির্ভর করবে। যদি ভারী অ্যাপ্লিকেশন চালাতে হয় তবে পেশাদার ল্যাপটপের মত অনুরূপ প্রয়োজন। লাইটওয়েট কাজের জন্য, কম শক্তিশালী মেশিন কেনা যেতে পারে।

আপনি যদি প্রচুর গেম খেলেন বা গ্রাফিক্স সংক্রান্ত কাজ করেন তাহলে ডেডিকেটেড গ্রাফিক্স কার্ড সহ গেমিং ল্যাপটপ প্রয়োজন।

আপনার যদি কম বাজেট থাকে তবে আপনি কম শক্তিশালী মেশিন না কিনে ব্যবহৃত ল্যাপটপ কিনতে পারেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে, আপনি একটি উচ্চ গতির ল্যাপটপ পাবেন। তবে, ব্র্যান্ড নিউ ল্যাপটপ অনেক বছর ধরে ভাল সার্ভিস দিবে এবং সাথে পার্টসের ওয়ারেন্টি থাকে।

ভ্রমণের জন্য বা সহজে বহন করার জন্য, পোর্টেবল বা ছোট ল্যাপটপ আদর্শ যা সাধারণত ১২ ইঞ্চি বা তার চেয়ে কম হয় এবং ব্যাগের ভিতরে সহজে রাখা যায়।

ল্যাপটপের জন্য কোন ওএস সেরা?

উভয় ওএস ল্যাপটপের জন্য খুব ভাল তবে তারা বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে চলে। উইন্ডোজ ল্যাপটপ দৈনন্দিন ব্যবহারের জন্য খুবই জনপ্রিয় এবং অ্যাপল ম্যাক গ্রাফিক্স ডিজাইনার এবং পেশাদারদের মধ্যে জনপ্রিয়। কিছু ল্যাপটপে লাইসেন্সযুক্ত উইন্ডোজ সঙ্গে আসে। লিনাক্স উইন্ডোজের সাথে ইনস্টল করা যেতে পারে এবং এটি বিনামূল্যে পাওয়া যায়।

আমি কি ল্যাপটপ হার্ডডিস্ক আপগ্রেড করতে পারি ?

হ্যাঁ, আপনি আপনার ল্যাপটপ এর হার্ডডিস্ক আপগ্রেড করতে পারবেন। এছাড়াও, কিছু ল্যাপটপে এসএসডি স্লট থাকে যাতে আপনি একটি এসএসডি ড্রাইভ ইনস্টল করতে পারেন যা প্রথাগত এইচডিডি থেকে ১০ গুণ বেশি দ্রুত। আপনি একই সাথে উভয় স্টোরেজ রাখতে পারেন।

ল্যাপটপের গ্রাফিক্স কার্ড কি আপগ্রেড করতে পারি ?

আপনি আপনার ল্যাপটপের গ্রাফিক্স কার্ড আপগ্রেড করতে পারবেন না। সুতরাং, আপনি যদি গেমার বা ডিজাইনার হন তবে ডেডিকেটেড গ্রাফিক্স কার্ড অবশ্যই কিনবেন। শেয়ারড গ্রাফিক্স কার্ড ভিডিও দেখা, ইন্টারনেট ব্রাউজ, সাধারণ গেমিং এবং দৈনন্দিন কাজের জন্য উপযুক্ত।

আমি কি আমার ল্যাপটপের রেম আপগ্রেড করতে পারি?

হ্যাঁ, আপনি আপনার ল্যাপটপের রেম আপগ্রেড করতে পারেন।

কোন ল্যাপটপ ব্র্যান্ড সেরা?

এনভি, এলিট, স্পেকটার, ক্রোমবুক, ওমান এবং জেডবুক স্টুডিও সিরিজের জন্য এইচপি ল্যাপটপ বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় ব্র্যান্ড

ডেল ব্র্যান্ডের ল্যাপটপের আছে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স, এবং দীর্ঘ ব্যাটারি লাইফ।

তোশিবা বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন ব্র্যান্ড। কম দাম এবং দুর্দান্ত সেবার জন্য তোশিবা বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় ল্যাপটপ ব্র্যান্ড

আসুস হল আরেকটি ল্যাপটপ ব্র্যান্ড যা এর সাবলীল ডিজাইন এবং দুর্দান্ত সাপোর্ট সার্ভিসের জন্য বাংলাদেশীদের মধ্যে প্রথম পছন্দ।

অন্যান্য সমস্ত ব্র্যান্ডের ল্যাপটপগুলি খুব ভাল এবং বর্তমানে লেনোভো, এসার এবং সনি বাংলাদেশে পাওয়া যায়।

একটি ল্যাপটপ কিনতে কত টাকা লাগবে?

ল্যাপটপের দাম সাধারণত প্রসেসর এবং বিল্ড কোয়ালিটির উপর নির্ভর করে। বাংলাদেশে খুব কম দামে ল্যাপটপ কেনা যাবে তবে তা কন্ডিশানের উপর নির্ভর করে। যাইহোক, বাংলাদেশে একটি ভাল নতুন ল্যাপটপের দাম হবে কমপক্ষে ৪০,০০০ টাকা যা বেশিরভাগ মানুষের জন্য যথেষ্ট এবং সাধারণ কাজগুলো সহজেই করা যাবে। পেশাদারদের জন্য, অধিক শক্তির প্রয়োজন হতে পারে তাই কমপক্ষে ৭০,০০০ টাকার বাজেট রাখুন যাতে শক্তিশালী প্রসেসর এবং প্রচুর মেমরি পেতে পারেন। আপনার বাজেট যাই হোক না কেন, দ্রুত কাজ করে এমন একটি ল্যাপটপ নেওয়ার চেষ্টা করুন যাতে আপনি সহজেই আপনার নিয়মিত কাজ করতে পারেন।

বিডিস্টল ল্যাপটপ কোথায় পাওয়া যায়?

ল্যাপটপ ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, ময়মনসিংহ, রাজশাহী, রংপুর, সিলেট এবং সারা বাংলাদেশে কম টাকায় পাওয়া যায়।