bdstall.com

জনপ্রিয়তা পায়নি আইওএস ১১

কিছুদিন আগে অ্যাপল আইওএস এর ১১ ভার্সন মুক্তি দিয়েছে। তবে আগের ভার্সনগুলোর মত এই ভার্সনটি খুব একটা জনপ্রিয়তা পায়নি এর গ্রাহকদের কাছ থেকে। সম্প্রতি অ্যাপলের করা একটি জরিপ থেকে এমনটাই দেখা যাচ্ছে। 

 

 

অ্যাপলের ডেভেলপার ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী এখন পর্যন্ত শতকরা ৫২ ভাগ ডিভাইস নতুন এই আইওএস ভার্সনে আপগ্রেড করা হয়েছে। যদিও এটি এন্ড্রয়েডের সাথে তুলনা করলে অনেক বেশি উপরে আছে, তবুও আইওএস এর আগের ভার্সনের তুলনায় এটি কিছুটা কমই বটে। গত বছরের সেপ্টেম্বরে রিলিজ পাওয়া আইওএস ১০ অক্টোবরের শেষে প্রায় ৬০ ভাগ ডিভাইসে আপগ্রেডেড হয়েছিল। 

 

 

আইফোনের মূল্য দেখুন এখানে

 

 

নতুন এই ভার্সনে আপগ্রেড হওয়ার জন্য অ্যাপল ব্যবহারকারীদের অনেকগুলো কারন দেখাচ্ছে যেমন নতুন ইমোজি কিংবা বিল্ট-ইন স্ক্রিন রেকর্ডার, তবুও অনেকগুলো কারণই রয়েছে যার জন্য ব্যবহারকারীরা এখনও নতুন ভার্সনে তাদের ডিভাইসগুলোকে আপগ্রেড করছেন না। 

 

 

স্মার্টফোনের মূল্য দেখুন এখানে

 

 

আইওএস ১১-এ অনেকগুলো অ্যাপই কাজ করবে না যেগুলো ৬৪-বিট প্রসেসর সাপোর্টের জন্য আপডেট করা হয়নি। নতুন এই ভার্সনে আগের তুলনায় বাগের সংখ্যাও কিছুটা বেশি যেমন কিবোর্ড ঠিকমত কাজ না করা এবং অতিরিক্ত ব্যাটারি ড্রেইনিং। এছাড়াও আইওএস ১১-এর বেশ কিছু ভালো ফিচার রয়েছে যেগুলো কেবলমাত্র আইপ্যাডেই সাপোর্ট করে। আইওএস এর আগের ভার্সন গুলোর আইওএস ১১ এর ব্যবহারকারীদের খুব একটা আকৃষ্ট করতে পারেনি।

 

 

আরও পড়ুনঃ আইওএস ১১-এ ব্যাটারি ড্রেইনের প্রতিকার

                আইওএস ১১-এর হিডেন ফিচারগুলো

 

 

Reviews (0) Write a Review