bdstall.com

ওমরাহ প্যাকেজ

৩টি পণ্য
৳ ৮৪,০০০
১ বছর আগে

ওমরাহ কি?

ওমরাহ্‌ বলতে ইসলামী নিয়ম-নীতি মেনে বাইতুল্লাহ বা আল্লাহর ঘর জিয়ারত করাকে বুঝায়। ওমরাহ্‌ পালনের ক্ষেত্রে কিছু নিয়মাবলী মেনে চলতে হয় তা হলো- ইহরাম বাধা, ক্বাবা শরীফ তাওয়াফ  করা, সাফা মারওয়ায় সাঈ করা, মাথা মুন্ডন করা। বাংলাদেশে ওমরাহকে ওমরাহ হজ নামেও ডাকা হয়।

কে ওমরাহ্‌ এর জন্য যোগ্য?

প্রত্যেক মুসলমানেদের জন্য ওমরাহ্‌ করা সুন্নাহ। যে কেউ মক্কায় ভ্রমণের ব্যয় বহন করতে পারে সে যোগ্য।

সেরা এজেন্সি কীভাবে নির্বাচন করবেন?

ওমরাহ্‌ হজ্জ্ব পালনের জন্য সরকারি লাইসেন্সের তালিকা ভুক্ত এজেন্সি নির্বাচন করা উচিৎ। অনেক সময় লক্ষ্য করা যায় কম টাকার ভিতরে ওমরাহ্‌ এর বিজ্ঞাপন দেখিয়ে নানাভাবে হয়রানী করার অপচেষ্টা করে। তাই হয়রানি থেকে রক্ষা করতে নিজেই ভালো কোন ওমরাহ্‌ হজ্জ্বের এজেন্সি বেছে নেওয়া ভালো এবং আপনি কোনও উদ্বেগ ছাড়াই বিডিস্টল.কম এর তালিকাভুক্ত এজেন্সি নির্বাচন করতে পারেন।

বাংলাদেশ থেকে ওমরাহ করার উপযুক্ত সময় কোনটি?

ওমরাহ্‌ পালন করার জন্য বিশেষ কোনো সুনির্দিষ্ট সময় বা দিন নেই। তবে মূল হজ্জ্বের সময় নির্ধারিত বিশেষ কিছুদিন যেমন ৮ জিলহজ্জ্ব থেকে ১২ জিলহজ্জ্ব পর্যন্ত এই পাঁচ দিন ওমরাহ্‌ পালন করা ঠিক নয়। এই ৫দিন ব্যাতীত সাড়া বছরের যে কোন সময় ওমরাহ্‌ পালন করা যায়। এছাড়াও ওমরাহ্‌ পালনের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত সময় হল আরবী রামাদ্বান ও শাওয়াল মাসে। এই সময়ে ওমরাহ্‌ পালন করলে সবচেয়ে বেশি সাওয়াব পাওয়া যায়। যদি কেউ মূল হজ্জ্ব এর পাশাপাশি ওমরাহ্‌ করতে চান তাহলে মূল হজ্জ্বের নির্ধারিত ৫ দিন বাদ দিয়ে করতে পারবেন।

বাংলাদেশ থেকে ওমরাহ যাওয়ার সময় কী নেওয়া উচিত?

বাংলাদেশ থেকে ওমরাহ্‌ এর উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার আগে প্রয়োজনীয় কাপড়-চোপড়, ওমরাহ্‌ এর জন্য ইহরামের কাপড় ও তোয়ালে নিতে হবে।

প্যাকেজে কী থাকতে হবে?

ওমরাহ ভিসাঃ ওমরাহ পালনের জন্য সর্বপ্রথম সৌদি আরবের  ভিসা থাকতে হবে। তবে ভিসা নেওয়ার ক্ষেত্রে অবশ্য ভালো এবং বিশ্বস্ত কোন হাজ্জ্ব ট্রাভেল এজেন্সি থেকে ভিসা সংগ্রহ করতে হবে।

বিমান টিকেটঃ ভিসা সংগ্রহ করার পরে পাশাপাশি বিমানের টিকেট সংগ্রহ করতে হবে। বর্তমান বাংলাদেশে দুই ধরণের বিমানের টিকেট পাওয়া যায় একটি হলো ডিরেক্ট ফ্লাইট অন্যটি হচ্ছে কানেক্টিং ফ্ল্যাইট। নিজের সুবিধা অনুযায়ী বিমানের টিকেট সংগ্রহ করতে পারবেন।

খাবারঃ খাবারের জন্য আগেই উমরাহ এজেন্সির সাথে কথা বলে নেওয়া ভালো। যদিও সৌদি আরবে খাবারের দাম তুলনা মূলক ভাবে কম। কম খরচে ভালো মানের খাবার পাওয়া যাবে সেখানে।

থাকার ব্যবস্থাঃ থাকার জন্য হোটেল কিংবা বাসা আছে যেখানে সুবিধা মনে করেন সেখানে থাকতে পারবেন। তবে সবচেয়ে ভালো কাছাকাছি কোন হোটেলে উঠা। ভালো হোটেলে উঠতে হলে এজেন্সির সাহায্যে বাংলাদেশ থেকেই অগ্রিম বুক করে রাখতে পারবেন।

গাইডঃ নতুন কোন স্থানে ভ্রমণ করার জন্য যেমন  কিছু গার্ডিয়ান বা গাইড লাইনের প্রয়োজন ঠিক উমরাহ জন্যও প্রয়োজন। একাধিক বার ওমরাহ্‌ করেছেন এমন কেঊ অথবা এজেন্সি থেকে কোন একজন গাইড দেওয়াই সকলের জন্য ভালো। তাহলে আর কোন সমস্যার সম্ভাবনা থাকে না।              

ওমরাহ প্যাকেজের খরচ কত ?

বাংলাদেশে উমরা প্যাকেজের সর্বনিম্ন খরচ ঢাকা থেকে ৭৫,০০০ টাকা এবং অবস্থানকাল সাধারণত ৭-১৪ দিন।