bdstall.com

কম টাকায় সেরা ৫টি প্রিন্টার

July 04, 2022

বর্তমান সময়ে প্রিন্টার একটি গুরুত্বপূর্ণ ডিভাইস। ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, এবং অফিস সহ সকল স্থানে প্রিন্টারের প্রয়োজন হয়। সকল প্রিন্টারের দাম একই না হওয়ায় কম বাজেট ভালো মানের প্রিন্টার মেশিন কিনতে নিম্নোক্ত এমন ৫টি প্রিন্টার সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেওয়া হয়ে হল যেটি আপানাকে অল্প টাকার মধ্যে ভালো মানের প্রিন্টার কিনতে সাহায্য করবে।

 

 

 

এইচপি 2320 অল-ইন-ওয়ান প্রিন্টার

স্বনামধন্য ব্র্যান্ড এইচপি ডেস্কজেট 2320 একের ভিতরে সব প্রিন্টারের এই মডেলের দাম অন্যান্য প্রিন্টারের তুলনায় কম। এইচপির এই প্রিন্টারে রয়েছে মাল্টি ফাংশন ডিজাইন যা যেকোনো ধরনের প্রিন্ট, কপি ও স্ক্যান করতে পারে। ডেস্কজেট 2320 প্রিন্টারের ব্ল্যাক প্রিন্টিং স্পিড প্রতি মিনিটে ৭.৫টি পেজ এবং কালার প্রিন্টিং স্পীড প্রতি মিনিটে ৫.৫টি পেজ। এই মডেলের প্রিন্টার দিয়ে প্রতি মিনিটে ৫টি পেজ কপি করা যায়। প্রত্যেক সাদা কালো পেজের প্রিন্টিং রেজুলেশন ১২০০ × ১২০০ ডিপিআই এবং কালার প্রিন্টিং এর রেজুলেশন ৪৮০০×১২০০ ডিপিআই এবং স্ক্যানারের রেজুলেশন থাকছে ১২০০ ডিপিআই পর্যন্ত। এইচপি ডেস্কজেট 2320 প্রিন্টারে A4 / A6 / B5 সাইজের পেপার ব্যবহার করা যাবে। এইচপি প্রিন্টারের ইনপুট ক্যাপাসিটিও খুব ভালো মানের। এতে থাকা পেপার ট্রেতে একত্রে ৬০টি শিট রাখা যায় এবং এর আউটপুট ট্রেতে ২৫টি শিট রাখা যায়। এর মেমোরি থাকছে ১২৮ মেগাবাইট এসডির‍্যাম ও ৩২ মেগাবাইট ফ্লাশ।

 

 

 

এইচপি ডেস্কজেট 2336 অল-ইন-ওয়ান প্রিন্টার

কম কালি খরচের জন্য এইচপি 2336 প্রিন্টারটি ব্যবহার করা হতে পারে বেস্ট চয়েজ। মাল্টি ফাংশন কালার ইঙ্ক প্রিন্টার হিসেবে এটি দিয়ে কম খরচে খুব ভালো কাজ করা যায়। এইচপি এর প্রিন্টার দিয়ে একসাথে প্রিন্ট, কপি ও স্ক্যান করা যায়। প্রতি মিনিটে প্রিন্ট হবে সাদা কালো ২০টি পেজ ১২০০×১২০০ ডিপিআই রেজুলেশনে এবং কালার প্রিন্টিং এর জন্য প্রতি মিনিটে ১৬টি পেজ প্রিন্ট হবে যার রেজুলেশন হল ৪৮০০×১২০০ ডিপিআ। এই প্রিন্টার দিয়ে A4 / A6 / B5 সাইজের ও এনভেলপ পেপার প্রিন্ট করার জন্য ব্যবহার করা যাবে। পেপার হোল্ডিং ক্যাপাসিটি খুব ভালো। এর একটি ইনপুট ট্রেতে ৬০টি পেজ রাখা যায়।

 

 

 

 

এপসন L-130 মাল্টিফাংশন প্রিন্টার

প্রিন্টারের কথা আসলে সর্বপ্রথম এপসনের কথা চলে আসে। এপসনের প্রিন্টারের চাহিদা এত বেশি যে কম বেশি সবাই এটির সাথে পরিচিত। এপসন ব্র্যান্ডের অনেক প্রিন্টার আছে তার মধ্যে এপসন-L130 প্রিন্টারের দাম তুলনামূলক কম। এপসন L-130 মডেলের প্রিন্টারটি দীর্ঘ সময় পর্যন্ত ভালো সার্ভিস প্রদান করতে পারে। এপসন L-130 প্রতি মিনিটে ১৫টি সাদাকালো পেজ প্রিন্ট করতে পারে এবং ৩৩টি কালার পেজ প্রিন্টিং করতে পারে। প্রিন্টিং এর প্রত্যেক পেজের রেজুলেশন হলো ৫৭৬০×১৪৪০ ডিপিআই ও কপিয়ারের রেজুলেশন ৩৬০ × ৩৬০ ডিপিআই এবং স্ক্যানার রেজুলেশন ৬০০×১২০০ ডিপিআই। এতে বিল্ট ইন ইঙ্ক ট্যাঙ্ক রয়েছে। এপসন L-130 প্রিন্টারের সাথে একটি পেপার ট্রে আছে যা ১০০টি A4 সাইজের পেপার, ২০টি প্রিমিয়াম গ্লসি ফটো পেপার, ১০টি এনভেলপ ও ৩০টি পোস্টকার্ড ধারণ করতে পারে। প্রিন্টারে সর্বোচ্চ ২১৫.৯ × ১২০০ মি.মি সাইজের পেপার ব্যবহার করা যাবে।

 

 

 

 

ক্যানন পিক্সমা iP2770 প্রিন্টার

কম্পিউটার পিসির সাথে নিখুঁতভাবে প্রিন্টিং এর কাজ করার জন্য ক্যানন পিক্সমা iP2770 কালার প্রিন্টারটি বেস্ট প্রিন্টার। ক্যাননের এই মডেলের প্রিন্টার দিয়ে উচ্চ রেজ্যুলেশনের প্রিন্ট, কপি ও স্ক্যানের পাশাপাশি ফটো প্রিন্ট এর মতো কাজ করা যায়। প্রিন্টারের প্রিন্টিং স্পিড সাদাকালোতে প্রতি মিনিটে ৬টি ছবি প্রিন্ট করতে পারে এবং প্রতি মিনিটে ৫টি ইমেজ যার প্রিন্টিং রেজুলেশন ৪৮০০ × ১২০০ ডিপিআই। এই প্রিন্টারে A4, AND, B5, লিগ্যাল, লেটার, খামের এই সাইজের কাগজ ব্যবহার করা যাবে। এর মধ্যে থাকা পেপার ট্রেতে A4 সাইজের ১০০টি পেপার ধারণ করার সক্ষমতা রাখে। এতে ২pl এর ইঙ্ক ট্যাঙ্ক ব্যবহার করা হয়েছে।

 

 

 

 

 

ব্রাদার DCP-T220 অল ইন ওয়ান প্রিন্টার

মাল্টি ফাংশন কাজের জন্য ব্রাদারের প্রিন্টার অনেক বেশি জনপ্রিয়। প্রিন্টারের কাজের ধরনের উপরে নির্ভর করে এর এর দাম কম বা বেশি হয়ে থাকে। ব্রাদার DCP-T220 মডেলের প্রিন্টার অনেক ভালো কাজ করে যেখানে এটি কিনতে কম টাকা খরচ হবে। প্রিন্টারের দামের তুলনায় পারফরমেন্স খুব ভাল। ব্রাদারের DCP-T220 প্রিন্টার দিয়ে প্রতি মিনিটে ২৮টি সাদাকালো পেজ এবং ১১টি কালার পেজ প্রিন্ট করা যাবে। এর প্রিন্ট ও স্ক্যানার রেজুলেশন হবে ১২০০ × ২৪০০ ডিপিআই আর এতে A4, A5 এবং A6 ইত্যাদি সাইজের পেপার ব্যবহার করা যাবে। প্রিন্টারের তথ্য সেভ বা জমা রাখার জন্য রয়েছে ৬৪ মেগা মেমোরি এবং পেপার ট্রের ধারণক্ষমতা হচ্ছে সর্বোচ্চ ১৫০টি পেজ‌।

Reviews (0) Write a Review