bdstall.com

নিসান গাড়ি এর দাম ২০২৩ & ২০২৪

আইটেম ১-২০ এর ৩০

নিসান গাড়িতে উন্নত প্রযুক্তির যেমন প্রোপিলট অ্যাসিস্ট সিস্টেম, আধা-স্বায়ত্তশাসিত ড্রাইভিং সহায়তা এবং ই-প্যাডেল সিস্টেম অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। ফলে সারাবিশ্বের সাথে বাংলাদেশে নিসান গাড়ী ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। সামগ্রিকভাবে, উদ্ভাবনী প্রযুক্তি, নির্ভরযোগ্যতা, এবং স্থায়িত্বতা সম্পন্ন নিসান গাড়ী সাশ্রয়ী মূল্যে বিডিতে  পাওয়া যায়।

বাংলাদেশে নিসান গাড়ির দাম কত?

বাংলাদেশে ব্যবহৃত এবং রিকন্ডিশন উভয় ধরনের নিসান ব্র্যান্ডের গাড়ী পাওয়া যায়। বর্তমানে বাংলাদেশে নিসান গাড়ীর দাম ১১,৫০,০০০ টাকা থেকে শুরু যা ব্যবহৃত এবং ইঞ্জিন ক্যাপাসিটি ১৫০০ সিসি হয়ে থাকে। এছাড়াও উন্নত প্রযুক্তি, ফুয়েল সিস্টেম, ইঞ্জিন ক্যাপাসিটি, ফ্রেশ ইন্টেরিয়র ডিজাইন, মডেল এবং সেফটি শিল্ড ইত্যাদি বিষয়ের উপর ভিত্তি করে বিডিতে নিসান ব্র্যান্ডের গাড়ীর দামের পার্থক্য হয়ে থাকে। তবে, বর্তমানে বাংলাদেশে প্রোপিলট অ্যাসিস্ট, ইনফোটেইনমেন্ট, ই-প্যাডেল এবং উন্নত ডিজাইনে তৈরি নিসান ব্র্যান্ডের গাড়ীর দাম ২৯,০০,০০০ টাকা থেকে শুরু।

নিসান গাড়ির কি কি বিশেষ সুবিধা রয়েছে?

নিসান গাড়ী মূলত বিশেষ কিছু উন্নত প্রযুক্তির বৈশিষ্ট্য রয়েছে যার ফলে ব্যবহারকারী গাড়ী ব্যবহারে সবচেয়ে বেশি সাচ্ছন্দ্যবোধ করে থাকে। নিম্নে কিছু বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাকঃ

উদ্ভাবনী প্রযুক্তিঃ নিসান গাড়ী মূলত উদ্ভাবনী প্রযুক্তির জন্য সবচেয়ে বেশি পরিচিত। কারণ ব্যবহারকারীকে নিরাপদ ও স্বাচ্ছন্দ্যে ড্রাইভিং সুবিধা প্রদানের জন্য প্রোপিলট অ্যাসিস্ট সিস্টেম, ই-প্যাডেল এবং সেফটি শিল্ড 360 এর মত  উন্নত নিরাপত্তা প্রযুক্তি এবং আধা-স্বায়ত্তশাসিত ড্রাইভিং সক্ষমতা প্রদান করে।

নির্ভরযোগ্যতাঃ নিসান ব্র্যান্ডের গাড়ি যথেষ্ট নির্ভরযোগ্য এবং স্থায়িত্বের জন্য খুবই সুপরিচিত। নতুন নতুন ডিজাইন, আরামদায়ক আসন বিন্যাস, এবং উন্নত প্রযুক্তি সংযোজনে নিসান ব্র্যান্ডের বিভিন্ন মডেলের গাড়ী ধারাবাহিকভাবে নির্ভরযোগ্য এবং ব্যবহারকারীদের পছন্দের তালিকায় উপরে দিকে অবস্থান করছে।

প্রোপিলট অ্যাসিস্ট সিস্টেমঃ এই ধরনের সিস্টেম মূলত আধা-স্বায়ত্তশাসিত ড্রাইভিং সিস্টেম। যার ফলে গাড়ীকে সহজেই তার লেনে কেন্দ্রীভূত রাখতে পারে। তাছাড়া নির্দিষ্ট গতি বজায় রাখতে সহায়তা করার পাশাপাশি যানজট পরিস্থিতিতে গাড়িটিকে সম্পূর্ণ থামাতে সাহায্য করতে পারে প্রোপিলট অ্যাসিস্ট সিস্টেম।

ই-প্যাডেলঃ ই-প্যাডেল সিস্টেম প্রধানত ব্যবহারকারীকে মসৃণ এবং দক্ষ ড্রাইভিং এ সহায়তা করে থাকে। এতে ব্যবহারকারী সহজে গাড়ির গতি বাড়ানো কিংবা কমাতে পারে এবং শুধুমাত্র অ্যাক্সিলারেটর প্যাডেল ব্যবহার করে গাড়িকে বন্ধ করতে সহায়তা করে থাকে।

ইন্টেলিজেন্ট অ্যারাউন্ড ভিউ মনিটরঃ নিসান ব্র্যান্ডের গাড়িতে রয়েছে উন্নত প্রযুক্তির ইন্টেলিজেন্ট অ্যারাউন্ড ভিউ মনিটর সিস্টেম। যার ফলে গাড়ি ড্রাইভ করার সময় আশেপাশের অবস্থার সূক্ষ দৃশ্য প্রদান করে। তাই ব্যাবহারকারীকে এই ব্র্যান্ডের গাড়ী যেকোন স্থানে পার্ক করতে এবং আঁটসাঁট জায়গায় ড্রাইভ করতে সহজ সমাধান দিয়ে থাকে।

ইনফোটেইনমেন্ট সিস্টেমঃ এই ব্র্যান্ডের গাড়ীতে উন্নত প্রযুক্তির সেবা প্রদানের জন্য রয়েছে নিসান ইনফোটেইনমেন্ট সিস্টেম। যা নেভিগেশন, স্মার্টফোন ইন্টিগ্রেশন, এবং বিভিন্ন ধরনের অ্যাপে সহজে অ্যাক্সেস করতে সহায়তা করে থাকে।

সেফটি শিল্ড ৩৬০ঃ নিসান ব্র্যান্ডের কারের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হচ্ছে সেফটি শিল্ড ৩৬০। এটি মূলত ব্যবহারকারীকে  নিরাপত্তা প্রদানের জন্য একজন সুরক্ষা টেকনোলোজি। যার মধ্যে রয়েছে স্বয়ংক্রিয় জরুরী ব্রেকিং, ব্লাইন্ড স্পট সতর্কতা, লেন পরিবর্তনের সতর্কতা, পিছনের ক্রস ট্রাফিক সতর্কতা ইত্যাদি ধরনের সুবিধা প্রদান করে ব্যবহারকারীর সুরক্ষা নিশ্চিত করে থাকে।

জিরো ইমিসনঃ গাড়ীর ইঞ্জিন, মোটর অথবা জ্বালানী উৎস থেকে বর্জ্য পদার্থ নির্গত করে পরিবেশকে দূষিত না করা হলো জিরো ইমিসন। নিসান ব্র্যান্ডের লিফ গাড়ীতে রয়েছে জিরো ইমিসন সুবিধা যা মূলত বৈদ্যুতিক শক্তি ব্যবহার করে চালানো হয়। ফলে পরিবেশের উপর কোনো ধরনের বিরূপ প্রভাব ফেলে না।

বাংলাদেশের সেরা নিসান গাড়ি এর মূল্য তালিকা March, 2024

নিসান গাড়ি মডেল বাংলাদেশে দাম
Nissan Bluebird 2006 ৳ ১,২৮০,০০০
Nissan X-trail Hybrid Mode Premier 2015 ৳ ২,৫০০,০০০
Nissan X-Trail Hard Jeep 2011 ৳ ২,২০০,০০০
Nissan Sunny 2001 ৳ ৫৮৫,০০০
Nissan Tiida 2006 ৳ ৮৩০,০০০
Nissan Sunny 2004 ৳ ৫৬৫,০০০
Nissan X-Trail 2015 ৳ ৩,২৫০,০০০
Nissan X-Trail 2016 Pearl ৳ ৩,১৭০,০০০
Nissan Sunny EX Saloon 2006 ৳ ৭৫০,০০০
Nissan X-Trail 2012 Pearl Color ৳ ২,১৫০,০০০