bdstall.com

১.৫ টন এসির দাম

আইটেম ১-৪০ এর ১০২

শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা বাংলাদেশে আধুনিক জীবনের একটি অপরিহার্য অংশ হয়ে উঠেছে। এক্ষেত্রে ১.৫-টন এসি, থাকার কিংবা কাজের জায়গাগুলোকে শীতল এবং আরামদায়ক রাখতে কার্যকর ভূমিকা পালন করছে। বর্তমানে বিডিতে ১.৫-টন এসি আবাসিক এবং ছোট বাণিজ্যিক স্থান শীতল করার জন্য জনপ্রিয় পছন্দ হয়ে উঠেছে। এই ক্যাপাসিটির এসি সাধারণত ইনভার্টার টেকনোলোজি, স্মার্ট কন্ট্রোল সিস্টেম এবং এয়ার পিউরিফিকেশন ফিল্টারসহ উন্নত বৈশিষ্ট্যে বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও মডেলে পাওয়া যায়। এটি শুধুমাত্র দক্ষ শীতলতা প্রদান করে না বরং স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের জন্য পরিবেশেও গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে।

১.৫-টন এসির দাম কত?

বাংলাদেশে নতুন ও পুরাতন উভয় কন্ডিশনের ১.৫-টন এসি পাওয়া যায়। বর্তমানে ১.৫-টন এসির দাম এর ব্র্যান্ড, টেকনোলোজি, কোয়ালিটি, টাইপ এবং এয়ার পিউরিফিকেশন সিস্টেম ইত্যাদির ভিত্তিতে নির্ধারিত হয়ে থাকে। বাংলাদেশে ১.৫-টন এসির দাম ২৫,০০০ টাকা থেকে শুরু যা স্প্লিট টাইপ এসি এবং পুরাতন কন্ডিশনের হয়ে থাকে। অন্যদিকে, নতুন কন্ডিশনের ১.৫-টন এসির দাম ৩৬,৯৯০ টাকা থেকে শুরু হয় যাতে টার্বো কুলিং মোড থাকে এবং অটো ক্লিন, এডজাস্টেবল এয়ার ফ্লো ফিল্টার এবং ডিজিটাল কন্ট্রোল সিস্টেমসহ বিভিন্ন আধুনিক বৈশিষ্ট্য অন্তর্ভুক্ত থাকে। তাছাড়া, ১.৫-টন ক্যাপাসিটির ইনভার্টার এসি বাংলাদেশে পাওয়া যায় যার দাম তুলনামূলক বেশি।

বাংলাদেশে অন্যান্য আকারের তুলনায় ১.৫ টন এসি ব্যবহারের সুবিধা কি কি?

নির্দিষ্ট রুম বা ব্যবহৃত স্থানের শীতল করার প্রয়োজনীয়তার উপর নির্ভর করে, বাংলাদেশে ১.৫ টন এসি কেনার বেশ কিছু সুবিধা রয়েছেঃ

১। সাধারণত ১৩০ থেকে ২০০ বর্গফুট এরিয়ার রুম শীতল রাখার পাশাপাশি আরামদায়ক তাপমাত্রা বজায় রাখতে যথেষ্ট কার্যকর ১.৫ টন এসি।

২। বড় এসির তুলনায় ১.৫ টন এসি বেশি শক্তি দক্ষ হওয়ায় কম বিদ্যুৎ খরচ করে ফলে অর্থ সাশ্রয়ী হয়ে থাকে।

৩। ১.৫ টন এসি তুলনামূলক কম সময়ে রুম ঠান্ডা করতে সক্ষম।

৪। আবাসিক এবং বাণিজ্যিক উভয় জায়গাতেই সহজে ব্যবহার উপযোগী যা বিভিন্ন সেটিংসের জন্য বহুমুখী বিকল্প হিসেবে কাজ করে থাকে।

৫। এছাড়াও ১.৫ টন এসি ব্যবহারে কার্বন নিঃসরণ অনেকাংশে কম হয় যা পরিবেশের উপর ক্ষতিকর প্রভাব কম হয়।

১.৫- টন ইনভার্টার এসি কতটা শক্তি সাশ্রয়ী?

১.৫-টন ইনভার্টার এসি রুমের পরিবেশ শীতল করার জন্য প্রয়োজন অনুযায়ী গতি সামঞ্জস্য করতে পারে। ফলে, ১.৫-টন ইনভার্টার এসি ব্যবহারে কম শক্তি খরচ হয় এবং কম বিদ্যুৎ বিল আসে। বর্তমানে, বাংলাদেশে ৩-স্টার, ৪-স্টার, এমনকি ৫-স্টার বিইই রেটিং সম্পন্ন ১.৫-টন এসি পাওয়া যায় যা অত্যন্ত শক্তি-সাশ্রয়ী এবং বিদ্যুৎ খরচ কমাতে সহায়ক।