bdstall.com

জেবিসিও টিভির দাম ২০২৪

আইটেম ১-২৮ এর ২৮

জেবিসিও টিভি কেনাকাটা

বর্তমান প্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে জেভিকো টিভিতে বিভিন্ন ধরনের বিশেষ বৈশিষ্ট্য অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে যা বিশ্বব্যাপী জেভিকো টিভিকে জনপ্রিয় করে তুলেছে। তাছাড়া, জেভিকো টিভিগুলো বাংলাদেশের বাজারে তুলনা মূলক কম দামে পাওয়া যায় বিধায় জেভিকো টিভি বাংলাদেশের সকল স্তরের ব্যবহারকারীদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

বাংলাদেশে জেভিকো টিভির দাম কত?

জেভিকো স্মার্ট টিভির দাম এর ডিসপ্লে সাইজ, র‍্যাম, স্টোরেজ, প্রসেসর, রেজোলিউশন, এবং সাউন্ড আউটপুট ভিত্তিতে নির্ধারিত হয়ে থাকে। বর্তমানে বাংলাদেশে জেভিকো টিভির দাম ১২,০০০ টাকা থেকে শুরু হয় যার ডিসপ্লে সাইজ ৩২-ইঞ্চি এবং যাতে ১জিবি র‍্যাম, ৮জিবি স্টোরেজ, এবং ফুল এইচডি রেজোলিউশন আছে। জেভিকো ৩৯-ইঞ্চি টিভি ও ৪৩-ইঞ্চি টিভির দাম ২১,৫০০ টাকা থেকে শুরু হয় যাতে ভয়েস কন্ট্রোল সিস্টেম রয়েছে। এছাড়া, জেভিকো ৫০-ইঞ্চি টিভির দাম ৩৩,৫০০ টাকা থেকে শুরু হয় যাতে ভয়েস কন্ট্রোল সিস্টেমের পাশাপাশি ৪কে রেজোলিউশন ডিসপ্লে রয়েছে। এবং, জেভিকো ৫৫-ইঞ্চি টিভির দাম ৪০,০০০ টাকা ও ৬৫-ইঞ্চি টিভির দাম ৫০,০০০ টাকা থেকে শুরু হয়। অন্যদিকে, ৭৫-ইঞ্চি জেভিকো টিভির দাম কিছুটা বেশি হয়ে থাকে।

জেভিকো টিভি কেন কিনব?

জেভিকো ব্র্যান্ড সাশ্রয়ী মূল্যে উন্নত মানের প্রযুক্তিসহ টিভি সরবরাহ করতে সক্ষম। বাজেট ও রুমের জায়গা অনুপাতে বিভিন্ন সাইজের জেভিকো টিভি বিডিতে পাওয়া যায়। জেবিসিও টিভির বিশেষ কিছু বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করা হলঃ

অপারেটিং সিস্টেমঃ জেভিকো টিভির অন্যতম বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো এর অপারেটিং সিস্টেম। এই ব্র্যান্ডের টিভিতে অ্যান্ড্রয়েড ও ওয়েবওএস দুই ধরনের অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়। অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম গুগল দ্বারা তৈরি করা হয়েছে অন্যদিকে ওয়েবওএস হলো লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেম যা এলজি দ্বারা তৈরি করা হয়েছে।

ডিসপ্লে রেজোলিউশনঃ জেভিকো টিভিগুলোতে ফুল এইচডি ও ৪কে রেজোলিউশনের ডিসপ্লে থাকে। ফলে স্পষ্ট রূপে সব ধরনের রেজোলিউশন ভিডিও উপভোগ করা যায়।

র‍্যাম ও স্টোরেজঃ জেভিকো স্মার্ট টিভিতে নির্দিষ্ট র‍্যাম ও স্টোরেজ থাকে ফলে সহজেই একাধিক অ্যাপ্লিকেশন একসাথে ব্যবহার করা যায় এবং পছন্দের কিছু ভিডিও সংরক্ষন করে রাখা যায়।

ভয়েস কন্ট্রোলঃ বেশীরভাগ জেভিকো টিভির মধ্যে অন্তর্নির্মিত ভয়েস কন্ট্রোল সিস্টেম থাকে। ফলে ভয়েস কন্ট্রোল রিমোটের মাধ্যমে পছন্দের যেকোনো অনুষ্ঠান বা ভিডিও অনুসন্ধান করে উপভোগ করা যায়।

স্ক্রিন শেয়ারিংঃ জেভিকো স্মার্ট টিভি স্ক্রিন শেয়ারিং সমর্থন করে ফলে মোবাইল ফোন থেকে ভিডিও স্ক্রিন শেয়ারিং ফিচার ব্যবহার করে পছন্দের ভিডিও টিভির বড় পর্দায় দেখা যায়। এমনকি, যেকোন পছন্দের গেম মোবাইল থেকে স্ক্রিন শেয়ারিং ফিচারের মাধ্যমে জেভিকো টিভিতে খেলা যায়।

সাউন্ড কোয়ালিটিঃ জেবিকো টিভিগুলোর সামনের দিকে উন্নত মানের স্টেরিও স্পিকার থাকে যা পরিষ্কার ও নয়েস মুক্ত সাউন্ড প্রদান করে। এবং, এই টিভির সাথে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন সাউন্ড বার থাকে যা লাউডস্পিকার এর কাজ করে।

কানেক্টিভিটিঃ জেভিকো টিভিতে এইচডিএমআই, ভিজিএ, ইউএসবি, ল্যান, এবং ওয়াই-ফাই কানেক্টিভিটি রয়েছে। এছাড়া, ডিশ লাইন সংযোগ ব্যবহার করা যাবে এবং পছন্দের জাতীয় ও আন্তর্জাতিক টিভি চ্যানেল উপভোগ করা যাবে।

স্থায়িত্বঃ জেভিসিও টিভি উন্নত মানের উপাদান দ্বারা তৈরি করা হয় বিধায় দীর্ঘ সময় টেকসই হয়ে থাকে। এবং, দীর্ঘ সময় ধরে উচ্চ গুনসম্পন্ন ভিডিও ও অডিও প্রদান করে থাকে।