bdstall.com

টয়োটা ফিল্ডার গাড়ির দাম

আইটেম ১-২০ এর ২০

গাড়ি কেনাকাটা

বিখ্যাত জাপানি কোম্পানী টয়োটা মোটর কর্পোরেশন দ্বারা নির্মিত ফিল্ডার গাড়ী বাংলাদেশে ফ্যামিলি ওয়াগন নামে বেশ পরিচিত। কারণ, টয়োটা ফিল্ডার গাড়ীর প্রশস্ত এবং আরামদায়ক অভ্যন্তর রয়েছে, যা প্রতিদিনের যাতায়াত এবং দীর্ঘ যাত্রার জন্য আদর্শ। ফিল্ডার গাড়ী মসৃণ এবং আকর্ষণীয় ডিজাইনে তৈরি হওয়ার পাশাপাশি উন্নতি জ্বালানী সাশ্রয়ী হয়ে থাকে। ফলে, টয়োটা ফিল্ডার বাংলাদেশে ব্যক্তিগত এবং পরিবারিকভাবে ব্যবহারের জন্য ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

ফিল্ডার গাড়ীর দাম কত?

বাংলাদেশে ব্যবহৃত এবং রিকন্ডিশন উভয় ধরনের টয়োটা ফিল্ডার গাড়ি পাওয়া যায়। বর্তমানে বাংলাদেশে টয়োটা ফিল্ডার গাড়ির দাম ১,১০০,০০০ টাকা থেকে শুরু যার ইঞ্জিন ক্যাপাসিটি ১৫০০ সিসি হয় এবং ব্যবহৃত কন্ডিশনে হয়ে থাকে। এছাড়াও উন্নত প্রযুক্তি, ডিজাইন, মডেল, এবং ট্রান্সমিশন সিস্টেম ইত্যাদি বিষয়ের উপর ভিত্তি করে বাংলাদেশে টয়োটা ফিল্ডার গাড়ির দামের পার্থক্য হয়ে থাকে।

টয়োটা ফিল্ডার গাড়ীর বিশেষ সুবিধা কি?

১। ফিল্ডার গাড়ীতে লেগরুম এবং হেডরুম সহ যথেষ্ট প্রশস্ত অভ্যন্তর রয়েছে, যা ড্রাইভিং এবং যাত্রী বসার জন্য যথেষ্ট আরামদায়ক হয়।

২। ফিল্ডার গাড়ীর ইঞ্জিন পরিবেশ বান্ধবভাবে ডিজাইন করা হয়েছে যার ফলে কম কার্বন নিঃসরণ করে এবং উন্নত জ্বালানী সাশ্রয়ী হয়ে থাকে।

৩। ভ্যারিয়েবল ভাল্ব টাইমিং উইথ ইনটেলিজেন্ট (ভিভিটিআই) প্রযুক্তি যুক্ত রয়েছে ফিল্ডার গাড়ীর ইঞ্জিনে যা পাওয়ার অপ্টিমাইজ করে গাড়ির মাইলেজ বৃদ্ধি করে।

৪। ফিল্ডার গাড়ীতে অ্যান্টি-লক ব্রেকিং সিস্টেম (এবিএস), ইলেকট্রনিক ব্রেকফোর্স ডিস্ট্রিবিউশন (ইবিডি), এবং ভেহিকেল স্ট্যাবিলিটি কন্ট্রোল (ভিএসসি) সহ উন্নত নিরাপত্তা ব্যবস্থা যুক্ত রয়েছে। ফলে, ফিল্ডার গাড়ী ড্রাইভিংয়ে ভালো নিয়ন্ত্রণ নিশ্চয়তা পাওয়া যায়।

৫। টয়োটা ফিল্ডার গাড়ীতে ওয়েল টিউনড সাসপেনশন সিস্টেম যুক্ত রয়েছে, ফলে আরামদায়ক মসৃণ ড্রাইভিং সুবিধা প্রদান করে।

৬। মডেল এবং ভ্যারিয়েন্টের উপর নির্ভর করে টয়োটা ফিল্ডার গাড়ীতে টাচস্ক্রীণ ডিসপ্লেযুক্ত উন্নত ইনফোটেইনমেন্ট সিস্টেম রয়েছে। পাশাপাশি নেভিগেশন, মিডিয়া প্লেব্যাক, এবং অডিও স্ট্রিমিংয়ের জন্য ব্লুটুথ সংযোগ সহ বিভিন্ন ধরনের ব্যবস্থা রয়েছে।

৭। এছাড়াও, পাওয়ার উইন্ডো, পাওয়ার-অ্যাডজাস্টেবল সাইড মিরর, অটোমেটিক ক্লাইমেট কন্ট্রোল, কী-লেস এন্ট্রি ইত্যাদি সুবিধা পাওয়া যায় টয়োটা ফিল্ডার গাড়ীতে।

বাংলাদেশে টয়োটা ফিল্ডার গাড়ীর মাইলেজ কত?

বাংলাদেশে টয়োটা ফিল্ডার গাড়ির মাইলেজ মূলত ড্রাইভিং অবস্থা, নির্দিষ্ট ইঞ্জিন ভেরিয়েন্ট সহ বিভিন্ন কারণের উপর নির্ভর করে পরিবর্তিত হয়ে থাকে। টয়োটা ফিল্ডার সাধারণত শহরে ১২ কি.মি. পার লিটার পর্যন্ত এবং হাইওয়ে ড্রাইভিংয়ে ১৮ কি.মি. পার লিটার পর্যন্ত মাইলেজ দেয়।। তাছাড়া, ইঞ্জিন বেশি পুরোনো হলে কিছুটা কম মাইলেজ পাওয়া যাবে।

বাংলাদেশে টয়োটা ফিল্ডার গাড়ী রিসেল ভ্যালু কেমন?

টয়োটা ফিল্ডার গাড়ী শক্তিশালী, নির্ভরযোগ্য এবং দীর্ঘস্থায়ী ব্যবহারের সুবিধা থাকায় বাংলাদেশের বাজারে যথেষ্ট রিসেল ভ্যালু রয়েছে। তবে, বাংলাদেশে টয়োটা ফিল্ডার গাড়ির রিসেল ভ্যালু মূলত গাড়ীর বয়স, অবস্থা, মাইলেজ, ব্যবহৃত গাড়ির চাহিদার উপর নির্ভর করে দাম পরিবর্তিত হয়ে থাকে। বর্তমানে বাংলাদেশে ১৩,০০,০০০ টাকার মধ্যে ২০১০ এর মডেলের এক্স ফিল্ডার গাড়ী পাওয়া যায়।

বাংলাদেশে টয়োটা ফিল্ডারের কি খুচরা যন্ত্রাংশ পাওয়া যায়?

হ্যাঁ, টয়োটা ফিল্ডারের খুচরা যন্ত্রাংশ সাধারণত বাংলাদেশে পাওয়া যায়। বাংলাদেশে টয়োটার অনুমোদিত ডিলারশিপ এবং সার্ভিস পয়েন্ট রয়েছে, সেখানে ফিল্ডার গাড়ীর সকল খুচরা যন্ত্রাংশ পাওয়া যায়। ফলে, এসব পয়েন্ট থেকে সামঞ্জস্যপূর্ণ এবং মান সম্পন্ন খুচরা যন্ত্রাংশ কিনে ব্যবহারের ফলে গাড়ির কার্যক্ষমতা এবং নির্ভরযোগ্যতা বজায় থাকে।