bdstall.com

আইটেল মোবাইল এর দাম ২০২৪

আইটেম ১-১ এর ১

মোবাইল কেনাকাটা

আইটেল মূলত চীনা মোবাইল ম্যানুফ্যাকচার কোম্পানী ট্রেনশন হোল্ডিংস কোম্পানী লিমিটেড এর তৈরি। আইটেল মোবাইল কম দামে আকর্ষণীয় ফিচার এবং নির্ভরযোগ্য কর্মক্ষমতা সম্পন্ন স্মার্টফোন সরবারহ করায় বাংলাদেশে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। তাছাড়া, গ্রাহকদের নির্দিষ্ট প্রয়োজনীয়তা এবং পছন্দকে প্রাধান্য দিয়ে উন্নত ডিসপ্লে, দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি লাইফ, স্ট্যান্ডার্ড ক্যামেরা এবং যথেষ্ট র‍্যাম ও স্টোরেজ ক্যাপাসিটি সম্পন্ন বিভিন্ন মডেলের আইটেল মোবাইল সাশ্রয়ী দামে জনপ্রিয় অনলাইন মার্কেটপ্লেস বিডিস্টল.কম এ পাওয়া যায়।

আইটেল মোবাইল কেন কিনবেন?

১। কম দামে আকর্ষণীয় ফিচারের সমন্বয়ে নির্ভরযোগ্য কর্মক্ষমতা প্রদান করায় বাংলাদেশে বাজেট সচেতন গ্রাহকদের জন্য আইটেল মোবাইলের চাহিদা অনেক।

২। এই ব্র্যান্ডের মোবাইলে প্রয়োজনীয় ফিচার এবং ফাংশন রয়েছে, যা দৈনন্দিন স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের চাহিদা পূরণ করে থাকে। এছাড়াও, আইটেল মোবাইলে স্ট্যান্ডার্ড কোয়ালিটির ক্যামেরা পাওয়া যায় পাশাপাশি নির্ভরযোগ্য কর্মক্ষমতা প্রদানে ভালো ব্যাটারি বেকআপ প্রদান করে।

৩। গ্রাহকদের পছন্দ এবং প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী বেসিক স্মার্টফোন থেকে শুরু করে উন্নত ফিচার, আকর্ষণীয় ক্যামেরা এর সমন্বয়ে আইটেল মোবাইল বিস্তৃত পরিসরে মডেল সরবারহ করে থাকে।

৪। আইটেল মোবাইল ব্যবহারকারী-বান্ধব ইন্টারফেস সরবারহ করে থাকে যা নেভিগেট করা অনেক সহজ। তাছাড়া, অপারেটিং সিস্টেম এবং প্রি-ইনস্টল করা অ্যাপ্লিকেশান সহজভাবে ডিজাইন করা হয়েছে, যা মসৃণ ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করে৷

৫। একাধিক সিম কিংবা ভিন্ন নেটওয়ার্ক ব্যবহারের জন্য আইটেল মোবাইলে ডুয়াল সিম ক্যাপাবিলিটি সুবিধা প্রদান করে থাকে।

৬। অ্যাপ, ফটো, ভিডিও এবং অন্যান্য ফাইলের জন্য যথাযথ স্টোরেজ স্পেস বাড়ানোর জন্য আইটেল মোবাইলে মাইক্রোএসডি কার্ড ব্যবহার করা যায়।

৭। ব্যাটারি বেশি সময় ব্যবহার বাড়ানো, পাওয়ার খরচ কমানো এবং অ্যাপ পারফরম্যান্স অপ্টিমাইজ করার জন্য আইটেল মোবাইলে পাওয়ার-সেভিং ফিচার এবং অপ্টিমাইজেশান সিস্টেম যুক্ত রয়েছে।

৮। তাছাড়া, ইউজার এক্সপেরিয়েন্স বাড়াতে আইটেল মোবাইলের সিকিউরিটি প্যাচ, বাগ ফিক্স এবং আকর্ষণীয় ফিচার সমন্বয় করতে নিয়মিত সফটওয়্যার আপডেট করে থাকে।

৯। বাংলাদেশে প্রায় সর্বত্র আইটেল মোবাইলের নিজস্ব সার্ভিসিং সেন্টার এবং অনুমোদিত খুচরা আউটলেট রয়েছে। ফলে, এই ব্র্যান্ডের মোবাইল ব্যবহারে যেকোনো সমস্যায় সহজেই মেরামত করা যায়। এছাড়াও, সফ্টওয়্যার আপডেট এবং ওয়ারেন্টি-সম্পর্কিত বিক্রয়োত্তর সেবাও পাওয়া যায়।

আইটেল মোবাইলের দাম কত?

বাংলাদেশে আইটেল মোবাইলের দাম ৪,৯০০ টাকা থেকে শুরু, যা এন্ট্রি-লেভেল স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জন্য মসৃণ কর্মক্ষমতা প্রদান করে। তাছাড়া, বাংলাদেশে আইটেল মোবাইলের দাম সাধারণত নির্দিষ্ট মডেল, ফিচার, স্পেসিফিকেশন এবং কান্ট্রি ভ্যারিয়েন্ট সহ অন্যান্য বিষয়ের উপর নির্ভর করে পরিবর্তিত হয়ে থাকে। উন্নত ফিচার, উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন প্রসেসর, র‍্যাম, স্টোরেজ এবং ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর যুক্ত আইটেল মোবাইল ৬,০০০ টাকা ১০,০০০ টাকা বাজেটের মধ্যে পাওয়া যায়।